Charu Asopa Rajeev Sen : ‘আমি তখন প্রেগন্যান্ট, ও অন্য মেয়ের সঙ্গে মজে…’, সুস্মিতার ভাইয়ের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক চারু আসোপা – charu asopa claims sushmita sen brother rajib sen cheated with her during pregnancy

0
9

[ad_1]

কথার উপ কথার প্রলেপ, যেন সিলিং ছুতে চায়…সুস্মিতা সেনের ভাই রাজীব সেন আর চারু আসোপার সম্পর্কের তিক্ততা এখন টক অফ দ্য টাউন। সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে রাজীবের স্ত্রী চারু একাধিক অভিযোগ এনেছেন তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে। অন্যদিকে নিজের Vlog-এ চারুর যাহতীয় অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলেছেন সুসের ভাই। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ছোট পর্দার অভিনেত্রী ও রাজীবের স্ত্রী চারু জানিয়েছেন, অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় তাঁর সঙ্গে খুবই খারাপ ব্যবহার করেছেন রাজীব। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে চারু আসোপা বলেন, ” কিছুদিন রাজস্থানের বিকানেরে থাকার পর প্রেগন্যান্সি পিরিয়ডটা মুম্বইতেই কাটিয়েছি। সেই সময় রোজ বেলা ১১ টার সময় রাজীব বেরিয়ে যেত। আর বাড়ি ফিরত রাত ১১ টায়। কখনও কখনও সাতটা, আটটা বা নটার সময় আসত।

Charu Asopa Rajeev Sen Marriage : ‘প্রমাণ করুক’, স্ত্রীকে ‘মিথ্যুক’ তকমা সুস্মিতা সেনের ভাইয়ের! লাই ডিটেক্টের দাবি
তিনি আরও বলেন, যখন রাত হওয়ার কারণ জানতে চাইতাম তখন বলত যখন ম্যাপে দেখতাম রাস্তায় জ্যাম তখন বান্দ্রার কোনও ক্যাফেতে বসে কফি খেতাম। তারপর যখন দেখতাম জ্যাম কমেছে তখন বাড়ির জন্য রওনা হতাম। আমি সেটাই বিশ্বাস করতাম।

Charu Asopa Rajeev Sen Marriage : ‘গায়ে হাত তোলে’, হ্যাপি বাবল ফাটিয়ে সুস্মিতার ভাইয়ের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক চারু
কখনও আবার এমনও বলত যে গাড়িতে নাকি ঘুমিয়ে পড়েছিল। একবার কাউকে কিছু না বলেই দিল্লিতে চলে গিয়েছিল। তখন চারিদিকে যা জিনিস ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিল সেগুলি গোছাতে গিয়ে একটা জিনিস পেয়েছিলাম। আর সেটা দেখেই বুঝেছিলাম ও অন্য মেয়ের সঙ্গে মজে…।”

Charu Asopa And Rajeev Sen: “কর্মফল একদিন পাবেই”, কাকে উদ্দেশ্য করে পোস্ট করলেন সুস্মিতার বৌদি?
সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের সামনে বিবাহবিচ্ছেদ প্রসঙ্গে মিসেস সেনের সংযোজন, “বিবাহিত জীবনকে আরও এতটা সুযোগ দেওয়া আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ভুল। যত দিন যাচ্ছে সম্পর্কের তিক্ততা আরও বাড়ছে।

জিনিয়ার জন্য এটা মোটেই ভালো পরিবেশ নয়। সেই জন্য এবার আইনতভাবেই আমরা আলাদা হয়ে যাব। আমি একটা ভাড়া বাড়িও খুঁজে নিয়েছি। আইনি কাজও শুরু করে দিয়েছি। এই বিয়েটাকে আর এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই না। জীবনের সাড়ে তিন বছর নষ্ট করে ফেলেছি। ”

চারু আরও বলেন, “রাজীব দু-একবার আমার গায়ে হাত তুলেছে। আমাকে সন্দেহ করে। যখন আমি শ্যুটিং-এ থাকি তখন আমার কোস্টারকে ফোন করে বা মেসেজে হুমকি দিয়ে বলে যে আমার থেকে যেন তাঁরা দূরে থাকে।

এভাবে তো কখনও কাজ করা সম্ভব নয়। আমার মনে হয় এখন ওর বয়স ৪৫। আর শোধরানোর সময় নেই। মেয়ের কথা ভেবে বিয়েটাকে রক্ষা করতে আরও একটা সুযোগ দিয়েছিলান রাজীবকে। কিন্তু, কোনও লাভ হল না।”

[ad_2]

Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here